অসামাজিক কাজের অভিযোগে যুব মহিলালীগ নেত্রীসহ আটক ১৯

সিলেটের জৈন্তাপুরে অসামাজিক কাজে জড়িত থাকার দায়ে সিলেট জেলা যুব মহিলা লীগের নেত্রীসহ ১৯ জনকে আটক করে পুলিশের হাতে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী। আটককৃত যুব মহিলা লীগের নেত্রীর নাম মীনারা চৌধুরী। তিনি সিলেট জেলা যুব মহিলা লীগের অর্থ সম্পাদক। আটককৃতদের সোমবার আদালতে প্রেরণ করে পুলিশ।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রোববার (২৫ আগস্ট) দিনগত রাতে অসামাজিক কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে এলাকাবাসী জৈন্তাপুর উপজেলার চিকনাগুল ইউনিয়নের উপহার কমিউনিটি সেন্টার সংলগ্ন একটি বাসা থেকে জেলা যুব মহিলা লীগের অর্থ সম্পাদক মীনারা চৌধুরীসহ ৩ নারী ও ১৬ পুরুষকে আটক করে। পরে এলাকাবাসী রোববার রাত ১২টায় তাদেরকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

আটককৃতরা হল- জৈন্তাপুর উপজেলার পশ্চিম ঠাকুরের মাটি এলাকার ফারুক মিয়ার ভাড়াটিয়া শাহপরান থানার পীরের চক গ্রামের মৃত আব্দুল কাদিরের ছেলে মাহতাব আহমদ (২২), শাহপরান থানার পীরের বাজার হাতুড়া গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে আলী হোসেন (৩৪), জৈন্তাপুর থানার পাঠনীপাড়া গ্রামের বর্তমান খাদিমপাড়া ২নং রোডের বাসিন্ধা মোঃ জয়নালের ছেলে মোঃ আলকাছ (২৭), খাদিমপাড়া চামেলীবাগ গ্রামের আব্দুল গফ্ফারের ছেলে মোঃ শাকিল শাহ (৩৪), বাউল টিলা গ্রামের মৃত আলকাছ মিয়ার ছেলে মোঃ সাজু (২৫), খাদিমপাড়া ২নং রোড গ্রামের মীর হোসেনের ছেলে সানি আহমদ (২১), জালালনগর গ্রামের শাহজাহান মিয়ার ছেলে ইমন আহমদ (১৯), শাহপরান আলবারাকা বিআইডিসি গ্রামের সোহেল আহমদের ছেলে হৃদয় আহমদ ওরফে রায়হান (১৯), মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া থানার পুরশাহ গ্রামের মতিন মিয়ার ছেলে শোয়েব আহমদ (২১), শিবগঞ্জ সাদিপুর গ্রামের মৃত আব্দুল আউয়ালের ছেলে মোস্তাকিন (১৯), ৪নং রোড খাদিমপাড়া গ্রামের দ্বীন ইসলামের ছেলে রুহুল আমীন (২০), মেজরটিলা সৈয়দপুর গ্রামের শহীদ আহমদের ছেলে শাহিন আহমদ (২৪), ৬নং রোড খাদিমপাড়া গ্রামের আব্দুল গফুরের ছেলে জুনাইদ আহমদ (২২), শাহপরান বাহুবল গ্রামের জাবেদ আহমদের ছেলে ইমরান আহমদ (২২), শাহপরান রুস্তুমপুর গ্রামের মোঃ মিন্টু মিয়ার ছেলে মোঃ আরিফ হোসেন (২১), শাহপরান মোহাম্মদপুর আ/এ বাসিন্দা জকিগঞ্জ থানার বিয়ারাইল গ্রামের মৃত ইলিয়াছ মিয়ার ছেলে রাজু আহমদ (২১), জৈন্তাপুর উপজেলার ৩নং চারিকাটা ইউনিয়নের বনপাড়া দক্ষিণ বর্তমান পশ্চিম ঠাকুরের মাটি গ্রামের ফারুক মিয়ার ভাড়াটিয়া আজিজুর রহমান চৌধুরীর স্ত্রী মিনারা বেগম চৌধুরী (৩১) ও একই গ্রামের আব্দুর রশিদের মেয়ে লিমা বেগম (১৮), জালালাবাদ থানার কুমারগাঁও নজিরগাঁও মাতৃ মঞ্জিলের মোহাম্মদ হোসেনের স্ত্রী হেনা বেগম (৪৫)। আটককৃতদের সোমবার সকাল ১১টায় আদালতে প্রেরণ করে জৈন্তাপুর মডেল থানা পুলিশ।

জৈন্তাপুর মডেল থানা পুলিশের ওসি শ্যামল বনিক জানান, অসামাজিক কাজে জড়িত থাকায় রোববার রাতে তাদেরকে আটক করে পুলিশকে খবর দেয় এলাকাবাসী। খবর পেয়ে পুলিশ ফৌর্স ঘটনাস্থলে পৌছালে এলাকাবাসী তাদেরকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। সোমবার আমরা আটককৃতদের আদালতে প্রেরণ করেছি। অপরাধ দমনে এলাকাবাসীর এমন সহযোগিতার কারণে তিনি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar