ইউএনওকে গালি, ওসিকে বদলির হুমকি এমপি নদভীর

প্রধান ফটকে এসে অভ্যর্থনা না জানানোয় সাতকানিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) অশোভন ভাষায় গালি এবং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) এক সপ্তাহের মধ্যে বদলির হুমকি দিয়েছেন চট্টগ্রাম-১৫ আসনের সংসদ সদস্য আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামউদ্দীন নদভী।

মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে সাতকানিয়া উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে মাসিক আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক সভা ও মাসিক উন্নয়ন সমন্বয় সভায় এ ঘটনা ঘটে।

চট্টগ্রাম ১৫ নম্বর আসন সাতকানিয়া-লোহাগাড়া (আংশিক) আসনের সংসদ সদস্য ড. আবু রেজা মোহাম্মদ নদভীর হুংকারে রঙ হারিয়েছে সাতকানিয়া উপজেলা মাসিক আইন-শৃঙ্খলা সভা। নির্দিষ্ট সময়ের প্রায় ২ ঘণ্টা পরে সভাস্থলে গিয়েও তাকে রিসিভ না করে সভা শুরু করার কারণে সদ্য নিয়োগ পাওয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুরে আলমের উপর চড়াও হন তিনি।

এ ঘটনার প্রতিবাদ করায় সাতকানিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান এম এ মোতালেবের সঙ্গেও অশোভন আচরণ করে তাকে মারতে উদ্যত হন এমপি নদভী।

সভায় উপস্থিত একাধিক ব্যক্তি জানান, সাতকানিয়া উপজেলার মাসিক আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক সভার নির্ধারিত সময় ছিল দুপুর ২টা ৩০ মিনিট। নিয়মানুযায়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নুরে আলমের সভাপতিত্বে যথাসময়ে সভা শুরু হয়।

বিকেল পৌনে ৪টার দিকে সভায় অংশ নিতে উপস্থিত হন চন্দনাইশ-সাতকানিয়া (আংশিক) আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম চৌধুরী। সাড়ে ৪টার দিকে সভায় অংশ নিতে আসেন লোহাগাড়া-সাতকানিয়া (আংশিক) আসনের সংসদ সদস্য আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামউদ্দীন নদভী। তখন সভা প্রায় শেষের দিকে এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বক্তব্যরত অবস্থায় ছিলেন।

সভাস্থলে ঢুকেই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে এমপি নদভী জানতে চান, ‘আপনি আমাকে রিসিভ করতে যাননি কেন?’ এ সময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অশোভন ভাষায় গালাগাল করেন তিনি। পরে উত্তেজিত এমপি নদভী থানার ওসির খোঁজ করেন। ওসিকেও গালাগাল করে তাকে এক সপ্তাহের মধ্যে থানা থেকে বদলি করে দেওয়ার হুমকি দেন।

এ সময় উপজেলা চেয়ারম্যান এম এ মোতালেব দুই সরকারি কর্মকর্তার সঙ্গে এমপি নদভীর অশোভন আচরণের প্রতিবাদ জানালে তাকে মারতে উদ্যত হন নদভী।

আচমকা এমপি নদভীর এমন আচরণে বিস্ময় প্রকাশ করেন সভায় উপস্থিত অতিথিরা। পরে উত্তেজিত এমপি নদভীকে নিবৃত করেন এমপি নজরুল ইসলাম চৌধুরীসহ অন্যরা।

মাসিক আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক সভা শেষে উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান ও বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানরা মাসিক উন্নয়ন সমন্বয় সভা মুলতবী করার আহ্বান জানান। পরে এমপি নজরুল ইসলাম চৌধুরীর অনুরোধে উপজেলা চেয়ারম্যান এমএ মোতালেবের সভাপতিত্বে মাসিক উন্নয়ন সমন্বয় সভা শুরু হয়।

উপজেলা চেয়ারম্যান এম এ মোতালেব বলেন, মাসিক আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক সভা চলাকালীন এমপি আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামউদ্দীন নদভী ঢুকে হঠাৎ ইউএনও’র সঙ্গে অশোভন আচরণ শুরু করেন। একপর্যায়ে ইউএনওকে গালাগাল করেন তিনি। পরে আমার সঙ্গেও অশোভন আচরণ করেন তিনি।

‘থানার ওসিকেও নাজেহাল হওয়ার আগে চলে যেতে বলেন এমপি নদভী। অন্যথায় এক সপ্তাহের মধ্যে ওসিকে বদলির হুমকি দেন।’ যোগ করেন এম এ মোতালেব।

ওই সভায় উপাস্থিত ছিলেন সাতকানিয়ার প্যানেল চেয়ারম্যান আঞ্জুমান আরা। এ ঘটনা সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন ‘আসলে সভায় ইউএনও সাহেব আসছে নতুন মানুষ, এমপি মহোদয় (নদভী) লেইটে আসছেন কিন্তু আমরা তো সবাই সভায় মশগুল ছিলাম। তখন উনাকে (এমপি) রিসিভ করা হয়নি কেন এইটা নিয়ে একটু বিশৃঙ্খলা হয়েছে। তবে পরে সবকিছু মিটমাট হয়ে গেছে।’

তবে এ ব্যাপারে নুরে আলমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন-‘তেমন না, ছোট্ট একটি ঘটনা ঘটেছে। পরে অবশ্য সবকিছু ঠিকঠাক হয়ে গেছে।’

এ বিষয়ে জানতে এমপি আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামউদ্দীন নদভীর মোবাইল নাম্বারে কল করা হলেও তিনি সাড়া দেননি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar