ওদের মনেও ‘সুপ্ত খুনী তথা নয়ন বন্ড’ ঘুমিয়ে আছে

ফেসবুকে শিক্ষিত লোকেরা যখন মিন্নীর কাবিননামা পোষ্ট করে খুনিদের পক্ষ অবলম্বন করে বুঝতে হবে আমাদের মনেও ‘সুপ্ত খুনী তথা নয়ন বন্ড’ ঘুমিয়ে আছে বলে ফেইসবুকে মন্তব্য করেছেন এক বিচারক।

ফেইসবুকে রিফাত হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে মতামত প্রকাশ করতে গিয়ে এমন মন্তব্যই প্রকাশ করেছেন চট্টগ্রামের মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আল-ইমরান খান।

তার নিজ ফেইসবুক প্রোফাইলে বিশদভাবে তুলে ধরেছেন রিফাত, রিফাতের স্ত্রী মিন্নি আর নয়ন বন্ড এর বিষয়ে বিভিন্ন ফেইসবুক ব্যবহারকারীদের মতামতের আলোকে নিজস্ব মতামত। তার মতামতটি হুবহু তুলে ধরা হল-

‘মিন্নী নামের মেয়েটি খারাপ-মানলাম। জেমস বন্ড@খুনী নয়ন বন্ডের সাথে তার পূর্বে বিবাহ হয়েছিল-মানলাম। কিন্তু এটা নিয়ে আমাদের সচেতন সমাজের কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য মানা যায় না। পূর্বের স্বামীর সাথে নিশ্চয়ই বিবাহ বিচ্ছেদ হওয়ার পরেই রিফাতকে মিন্নী বিয়ে করেছিল; আর যদি বিবাহ বিচ্ছেদ না করেই মিন্নী রিফাতকে বিয়ে করে থাকলে সে দায় নিশ্চয়ই রিফাতের না-এটা মিন্নী করে থাকলে তার দায়ভার সম্পূর্ণ মিন্নীর এবং এটার জন্য মিন্নী ফৌজদারী অপরাধেও অপরাধী।

ফেসবুকে শিক্ষিত লোকেরা যখন মিন্নীর কাবিননামা পোষ্ট করে খুনিদের পক্ষ অবলম্বন করে বুঝতে হবে আমাদের মনেও ‘সুপ্ত খুনী তথা নয়ন বন্ড’ ঘুমিয়ে আছে। আমাদের আরো বোঝা দরকার নয়ন বন্ডের নামে পূর্বের অনেক মামলা মোকদ্দমা আছে যা তার চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যের প্রমাণ দেয়। আর এরুপ খুনিদের পক্ষে সাফাই গাওয়া বা পক্ষালম্বন করা লোকেরও অভাব নেই। চট্রগ্রামের কুখ্যাত সন্ত্রাসী অমিত মুহুরীরও অনেক সমর্থক ছিলো। কিন্তু অমিত কেমন টাইপের ঠান্ডা মাথার মার্ডারার ছিলো যারা তাকে কাছে থেকে তার অপরাধের বর্ণনা না শুনেছে তারা বুঝবে না!

রিফাত ছেলেটাকে যেভাবে প্রকাশ্য দিবালোকে কুপিয়ে তার হত্যাকে জায়েজ করার জন্য মিন্নী নামের নারীর চারিত্রিক বিষয়টাকে সামনে আনছেন তারা প্রথমত, নারীকে সম্মান দিতে শিখেন নি এবং দ্বিতীয়ত, তারা সুপ্ত নয়ন বন্ডকে অন্তরে লালন করেন।

রিফাতকে নিজ ফ্যামিলির ভাই বা ছেলে হিসাবে চিন্তা করুন উওর পেয়ে যাবেন।’

(মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আল-ইমরান খানের ফেইসবুক স্ট্যাটাস হতে সংগৃহীত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar