জিডি বিষয়ে আইন জিজ্ঞাসার জবাব (পর্ব-০১)

প্রশ্নঃ  জি.ডি. কি ?

উত্তরঃ  জি. ডি. হচ্ছে – জেনারেল ডায়েরী বা সাধারণ ডায়েরী। এই ডায়েরী হলো অপরাধ বা ক্ষতি সংঘটনের আশঙ্কাজনিত বিবরণ। আপনি যদি আশংকা করেন যে, কেউ আপনার ক্ষতি করতে পারে বা আপনার ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে এমন ক্ষেত্রে আপনি আইনের সহায়তা চান, তাহলে উক্ত আশংকার বিবরণ দিয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নেবার জন্য থানায় দরখাস্ত দেয়াকেই জেনারেল ডায়েরী বা সাধারণ ডায়েরী (জিডি) করা বলে। এ বিষয়ে ফৌজদারী কার্যবিধি ১৫৪/১৫৫ ধারায় বলা আছে।

প্রশ্নঃ  কোন কোন ক্ষেত্রে জি.ডি. করা যায় ?

উত্তরঃ  আপনার বা আপনার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে যে কোন ব্যক্তি কর্তৃক অপরাধ সংঘটনের আশঙ্কা থাকলে বা কেউ হুমকি দিলে, কিছু হারিয়ে গেলে বা হারানোর আশঙ্কা থাকলে, বাড়ির কাজে অপরিচিত লোক নিয়োগ দিলে বা না বলে চলে গেলে সেক্ষেত্রে জিডি করতে হয়।

প্রশ্নঃ  জি.ডি.তে কি কি থাকে ?

উত্তরঃ  জিডিতে অবশ্যই সুস্পষ্টভাবে বিষয় সম্পর্কে এবং স্থান, সময়, তারিখ উলে−খ করতে হবে।

প্রশ্নঃ  গৃহকর্মী নিয়োগ করার সময় কি কি বিশেষ সর্তকতা অবলম্বন করতে হয়?

উত্তরঃ  বাড়ির কাজের জন্য গৃহপরিচারিকা বা গৃহকর্মী হিসেবে ছেলে বা মেয়ে রাখার আগে তার এবং তার পরিবার সম্পর্কে যতটা সম্ভব বিস্তারিত খোঁজ খবর জেনে নিন। তাকে কাজে নিযুক্ত করার সময় একটি পাসপোর্ট সাইজ ছবি তুলে নিজের কাছে রাখুন এবং তার ছবি ও নাম ঠিকানা দিয়ে নিকটস্থ থানায় জিডি করুন। প্রয়োজনে তার বাড়ীতে লোক পাঠিয়ে খোঁজ নিন।

প্রশ্নঃ  গৃহকর্মী ব্যতীত বাসার কেউ হারিয়ে গেল কি করতে হবে ?

উত্তরঃ  প্রায়ই পরিবারের বয়স্ক কোন ব্যক্তি কিংবা শিশু অথবা প্রতিবন্ধী সদস্য এবং কাজের ছেলে বা মেয়ে নিখোঁজ হবার খবর পত্রিকায় ছাপা হয়। এ ধরনের কোন নিখোঁজ বা হারিয়ে যাওয়ার ঘটনা যদি আপনার পরিবারে ঘটে সেক্ষেত্রে সঙ্গে সঙ্গে নিকটস্থ থানায় আগে একটি জিডি বা সাধারণ ডায়েরি করবেন। এরপর কোন জাতীয় অথবা স্থানীয় পত্রিকায় হারানো বিজ্ঞাপন দেবেন। এলাকায় মাইকিং করতে ভুলবেন না।

প্রশ্নঃ  যদি মূল্যবান দলিল পত্রাদি হারিয়ে যায় বা মূল্যবান কাগজ পত্র হারিয়ে যায় তখন কি করতে হবে?

উত্তরঃ মূল্যবান কাগজপত্র, দলিলাদি হারিয়ে গেলে প্রথমেই নিকটস্থ থানায় একটি জিডি বা সাধারণ ডায়েরি করতে হবে। এরপর পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিবেন, যাতে এসকল মূল্যবান কাগজপত্র  কেউ পেলে ফিরিয়ে দিতে পারে। এছাড়াও ভবিষ্যতে আপনার আইনগত ভিত্তি শক্ত থাকবে। কারণ এই দলিল বা কাগজপত্র না থাকায় আপনি বিপদে পড়তে পারেন। যে কাগজ বা দলিল হারিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বরাবর আবার নতুন করে সেই কাগজপত্র বা দলিল প্রদানের আবেদন জানাতে পারবেন এই ভিত্তির কারণে।

প্রশ্নঃ  যদি কেউ কাউকে জোর করে বা ইচ্ছার বিরুদ্ধে সাদা কাগজে বা লিখিত বা সাদা ষ্ট্যাম্প পেপারে স্বাক্ষর করিয়ে নেয়, সে ক্ষেত্রে করনীয় কি ?

উত্তরঃ কেউ যদি জোর করে বা ইচ্ছার বিরুদ্ধে সাদা কাগজে বা লিখিত বা সাদা স্ট্যাম্প পেপারে স্বাক্ষর করিয়ে নেয়, সেক্ষেত্রেও বিষয়টি অবগত করার জন্য যত তাড়াতাড়ি সম্ভব স্থানীয় থানায় জিডি করতে হবে এবং উদ্ধারের জন্য আদালতের আশ্রয় নিতে হবে।

প্রশ্নঃ  জি.ডি. করতে থানায় কোন টাকা পয়সা লাগে কি ?

উত্তরঃ  না, জিডি করার জন্য থানায় কোন টাকার প্রয়োজন হয় না। এর জন্য কোন ফি ধরা নেই। সংশ্লিষ্ট থানায় গেলেই দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তা জিডি লিপিবদ্ধ করবেন।

জবাব দিয়েছেনঃ এ.এম জিয়া হাবীব আহ্সান, এডভোকেট, বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট, ডাইরেক্টর -অর্গানাইজিং ও সভাপতি-চট্টগ্রাম শাখা, বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস্ ফাউন্ডেশন -বিএইচআরএফ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar