ফল প্রত্যাখ্যান জাতীয় ঐক্যফ্র‌ন্টের

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ফল প্রত্যাখ্যান করেছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। একই স‌ঙ্গে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে পুনঃনির্বাচন দাবি করেছে জোটটি।

রোববার রাতে রাজধানীর বেইলি রোডে জাতীয় ঐক্যফ্র‌ন্টের  নেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেনের বাসায় এক সম্মেলনে এই দাবি জানান তিনি।

ড. কামাল হো‌সেন ব‌লেন, ‘দেশের প্রায় সব আসন থেকেই ভোট ডাকাতির খবর এসেছে। ফলে এ পর্যন্ত বিভিন্ন দলের শতাধিক প্রার্থী নির্বাচন বর্জন করেছেন।’

‘এই অবস্থায় আমরা নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি, অবিলম্বে এ প্রহসনের নির্বাচন বাতিল করা হোক। এ নির্বাচনের কথিত ফলাফল আমরা প্রত্যাখ্যান করছি এবং সেই সঙ্গে নির্দলীয় সরকারের অধীনে পুনঃনির্বাচন দাবি করছি।’

তি‌নি ব‌লেন, ‘জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট দেওয়ার জন্য সমগ্র দেশবাসী যখন প্রস্তুত, তখনই আমরা দেশের বিভিন্ন নির্বাচনী এলাকা থেকে একের পর এক খবর পাই যে, গতকাল রাতেই আওয়ামী লীগ এবং নির্বাচনের দায়িত্বে নিয়োজিত কর্মকর্তাদের সহায়তায় নৌকা মার্কায় সিল মেরে বাক্সে ভরে রাখে। ঠাকুরগাঁওসহ দেশের বেশকিছু কেন্দ্র থেকে খবর এসেছে যে, বেশ কয়েকটি কেন্দ্রের বুথ তালা মেরে রাখা হয়েছে। আজ সকাল থেকেই খবর আসছিল, দেশের প্রায় সব কেন্দ্র থেকেই ধানের শীষের এজেন্টদের বের করে দেওয়া হয়েছে। কোথাও তাদের মারধর করা হয়েছে।

ড. কামাল ব‌লেন, নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদারও তার নিজ কেন্দ্রে ভোট দিতে গিয়ে ধানের শীষের কোনো এজেন্ট পাননি। তাই তিনি আক্ষেপ করে বলেছেন, ‘আমার একার পক্ষে করার কিছু নেই।’ যদিও অত্যন্ত নির্লজ্জের মতো প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেছেন, কয়েকটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া সারা দেশে নির্বাচন সুষ্ঠু হচ্ছে!’ অথচ সারা দেশে ব্যাপক নির্বাচনী সহিংসতায় অসংখ্য হাতাহতের ঘটনা ঘটে এবং ইতিমধ্যেই ১১ জন নিহত হয়েছে। এ সংখ্যা আরো বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থীসহ শত শত নেতা-কর্মী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।  

পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে বিভিন্ন স্থানে সাংবাদিকদের হামলা কথা উল্লেখ ক‌রেন জাতীয় এক্যফ্র‌ন্টের এই শীর্ষ নেতা।

এ সময় কেন্দ্রে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পোলিং এজেন্টকে ঢুকতে না দেওয়া, তাদের বের করে দেওয়া এবং প্রার্থী ও নেতা-কর্মীদের মারধরের চিত্র তু‌লে ধ‌রে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ভূমিকার কঠোর সমালোচনা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar