ব্যস্ত ঢাকা নীরবতায়

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে উপলক্ষে গত দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে বিভিন্ন প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের নির্বাচনী মিছিল, স্লোগান, গান ও বাদ্য-বাজনায় মুখরিত ছিল ঢাকা। রাজপথ থেকে পাড়া-মহল্লার অলি-গলি সর্বত্রই ছিল জমজমাট প্রচারণা। রাজধানী ঢাকার এই রূপ এখন বদলে গেছে।

নির্বাচন কমিশনারের নির্দেশনা অনুসারে আজ (শুক্রবার) সকাল ৮টা থেকে প্রচার-প্রচারণা বন্ধ হওয়ায় দেখা মিলল কোলাহলমুক্ত এক ঢাকার। শুধু রাজধানীতেই নয়, সারাদেশে মূলত গতকাল মধ্যরাত থেকেই বন্ধ হয়ে যায় বিভিন্ন প্রার্থীর পক্ষে মাইকিং, ঢাক-ঢোল-বাদ্য ও সাউন্ড সিস্টেমে হাই ভলিউমে প্রচার-প্রচারণা।

southeast

শুক্রবার সকাল ১০টায় রাজধানীর ধানমন্ডি, রমনা ও তেজগাঁওয়ের বিভিন্ন সড়ক ঘুরে দেখা গেছে, অন্যান্য দিনের তুলনায় রাস্তা অনেকটাই ফাঁকা। যান চলাচল কম। মানুষের ভিড়ও নেই। ফলে কোথাও কোনও শব্দদূষণ নেই।

৩০ ডিসেম্বর জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট। এই ভোট দিতে ইতোমধ্যেই ঢাকা শহর ছেড়ে গ্রামের বাড়ি চলে গেছেন লাখো মানুষ। সরকারি চাকরিজীবীরা টানা তিন দিনের ছুটি পেয়েছেন। এর মধ্যে শুক্র ও শনিবার সরকারি, রোববার নির্বাচন উপলক্ষে সাধারণ ছুটি। কেউ কেউ আগে-পরে আরও দু’একদিন ছুটি মঞ্জুর করে পরিবার-পরিজন নিয়ে গ্রামের বাড়ি গেছেন।

আজ জুমার নামাজে রাজধানীর বিভিন্ন মসজিদেও মুসল্লিদের ভিড় অপেক্ষাকৃত কম দেখা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar