শুক্রবার সকাল ৮টায় শেষ প্রচার- প্রচারণা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আগামীকাল-শুক্রবার সকাল ৮টায় শেষ হচ্ছে সব ধরনের প্রচার-প্রচারণা।

এরপর থেকে কোনও প্রার্থী ও রাজনৈতিক দল নির্বাচনি প্রচার কার্যক্রম চালাতে পারবেন না।

গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও) অনুযায়ী, ভোট গ্রহণের ৪৮ ঘণ্টা আগ থেকে সব ধরনের প্রচার বন্ধ থাকার বিধান রয়েছে।

নিয়মানুসারে শুক্রবার সকাল ৮টায় এ সীমা শেষ হচ্ছে। এই হিসাবে কার্যত আজই -বৃহস্পতিবার প্রচারণার শেষ দিন। ৩০ ডিসেম্বর সকাল ৮টায় সংসদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত।

এদিকে, একাদশ সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে নির্বাচন কমিশন (ইসি) প্রায় সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে—এখন চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি বলে জানিয়েছেনে কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদাত হোসেন চৌধুরী।

তিনি বলেন, এ মুহূর্ত পর্যন্ত যতটুকু প্রস্তুতি দরকার তারা সেটা সম্পন্ন করা হয়েছে।

কমিশনার শাহাদাত হোসেন আরো বলেন, আগামীকাল সকাল ৮টায় প্রচারণা শেষ হবে। সংসদ নির্বাচনের জন্য আমরা সম্পূর্ণভাবে প্রস্তুত। এই মুহূর্ত পর্যন্ত যতটা প্রস্তুতি দরকার, সেটা আমরা সম্পন্ন করতে পেরেছি। নির্বাচনি সামগ্রীসহ ব্যালট পেপার অনেকগুলো আসনে পৌঁছে গেছে। বাকি এলাকাগুলোতে ব্যালট পেপার যেতে শুরু করেছে।

তিনি বলেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন হয়েছে জরুরি প্রয়োজনে বিমানবাহিনীর হেলিকপ্টার প্রস্তুত রয়েছে। যেসব আসনে ইভিএম ব্যবহার হবে, সেখানে ইভিএম মেশিন পৌঁছেছে। এখন ভোটারদের প্রশিক্ষিত করতে সেখানে মক ভোটিং চলছে।

কতটি দল অংশ নিচ্ছে:

এবার সংসদ নির্বাচনে নিবন্ধিত ৩৯টি রাজনৈতিক দল অংশ নিচ্ছে।

দীর্ঘ ১০ বছর পর মুখোমুখি হতে যাচ্ছে রাজনীতিতে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ ও বিএনপি। তারা উভয়ই জোটবদ্ধভাবে ভোটে অংশ নিয়েছে। একক দল হিসেবে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ (হাতপাখা) সব থেকে বেশি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে। দেশের ৩০০ আসনের মধ্যে দলটির ২৯২ জন প্রার্থী রয়েছেন বলে জানা গেছে।

এবারের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ১৮০০ এর বেশি প্রার্থী। এর মধ্যে ৫০ জনের মতো রয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী, বাকিরা বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের।

এবার সব দল অংশ নেয়ায় সারা দেশে নির্বাচনি আবহ বিরাজ করছে।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও বিএনপি পরস্পরের বিরুদ্ধে হামলা, নির্বাচনি ক্যাম্প ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের বিস্তর অভিযোগ করেছে। পাশাপাশি নির্বাচন কমিশন (ইসি), প্রশাসন ও পুলিশের বিরুদ্ধে পক্ষপাতের অভিযোগ এসেছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও বিএনপিসহ কয়েকটি দল থেকে।

ইসি সূত্রে জানা গেছে, এবার ৩০০ আসনে ভোটার ১০ কোটি ৪২ লাখ ৩৮ হাজার।

নির্বাচনে ৪০ হাজার ১৮৩টি ভোট কেন্দ্র ও ২ লাখ ৬ হাজার ৪৭৭টি ভোটকক্ষ রয়েছে। একজন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর মৃত্যুর কারণে গাইবান্ধা- ৩ আসনে ভোট স্থগিত করে পুনঃতফসিল দেয়া হয়েছে। ওই আসনে ভোটারের সংখ্যা চার লাখের বেশি।

এবারই প্রথম সংসদ নির্বাচনে ইলেক্ট্রোনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করা হচ্ছে। ছয়টি আসনে ইভিএম ব্যবহার করা হবে।

ভোট গ্রহণ কাজে নিয়োজিত থাকবেন প্রায় সাত লাখ কর্মকর্তা। আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় পাঁচ লাখের বেশি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য মাঠে থাকবেন। এরই মধ্যে সেনা ও নৌবাহিনী, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশসহ (বিজিবি) অন্যান্য বাহিনীর সদস্যরা মাঠে নেমেছেন।

আগামীকাল মধ্যরাত থেকে সারা দেশে মোটরসাইকেল চলাচলে বিধিনিষেধ এবং ২৯ ডিসেম্বর মধ্যরাত থেকে সড়ক ও নৌপথের যানচলাচল বন্ধ থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar