সেই পুলিশসহ দুজন কারাগারে

রাজধানীর মতিঝিলে ১০ লাখ টাকা ছিনতাইচেষ্টার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় বংশাল থানার পুলিশ কনস্টেবল আল মামুন মাহমুদসহ দুজনকে রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

শনিবার এক দিনের রিমান্ড শেষে আসামিদের আদালতে হাজির করে মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা মতিঝিল থানার এসআই এনামুল হক শিমুল।

আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মহানগর হাকিম শহিদুল ইসলাম আসামিদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

কারাগারে যাওয়া অপর আসামি হলেন জাহিদুল ইসলাম জিতু। তিনি নিজেকে সিআইডির পরিদর্শক হিসেবে পরিচয় দিতেন।

গত ৫ সেপ্টেম্বর আসামিদের এক দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

গত ৪ সেপ্টেম্বর বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে মতিঝিলে এনআরবিসি ব্যাংক থেকে টাকা তুলে মোহামেডান ক্লাবের সামনের সড়কে এলে তিন ব্যক্তি পুলিশ পরিচয় দিয়ে আবুল কালাম আজাদের কাছ থেকে টাকার ব্যাগ ছিনিয়ে নিতে চায়। এতে বাধা দিলে মামুন তার হাতে থাকা হ্যান্ডকাপ দিয়ে আজাদের মাথায় আঘাত করে। পরে টাকার ব্যাগ নিয়ে পালানোর সময় জনতা দুজনকে ধরে ফেলে। একজন পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় বুধবার দিবাগত রাত ১টার দিকে মতিঝিল থানায় ব্যবসায়ী আবুল কালাম আজাদ বাদী হয়ে তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

ছিনতাইয়ের শিকার আবুল কালাম আজাদের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরে। তিনি রাজধানীর আরামবাগে থাকেন। পল্টনের শখ টাওয়ারে তার ইলেক্ট্রিক সরঞ্জাম ব্যবসার অফিস আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar