হারপিক খেয়ে খুলনায় এমপি পুত্রের আত্মহত্যা

খুলনা-৫ আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দের ছোট ছেলে অভিজিৎ চন্দ্রচন্দ (৩৫) হারপিক খেয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেছেন। এর আগে ২০১৭ সালেনারায়ণ চন্দ্র চন্দেরবড় মেয়েজয়ন্তী রানী চন্দ ওর‌ফে বে‌বিও এমন ঘটনা ঘটান।

বুধবার সকালে খুলনার ডুমুরিয়ার নিজ বাড়িতে হারপিক খেয়েঅসুস্থ হন অভিজিৎ চন্দ্র চন্দ। স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসার পর বিকালে হেলিকপ্টারে তাকে ঢাকায় এনে স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই রাতে তার মৃত্যু হয়।

অভিজিতের বড় ভাই রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক বিশ্বজিৎ চন্দ্র চন্দ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, তার ভাই বেশ কিছু দিন ধরে মানসিক বিকারগ্রস্ত ছিলেন। এ কারণে এ ঘটনা ঘটিয়েছেন। তার মরদেহ খুলনায় ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার প্রস্তুতি চলছে।

অভিজিৎ চন্দ্র চন্দ খুলনা জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

সংসদ সদস্য নারায়ন চন্দ্র চন্দ বলেন, অভিজিৎ বিবাহিত, সেদুই সন্তানের বাবা।বেশ কিছুদিন ধরেই সে মানসিকভাবে অসুস্থ ছিল। এ কারণে তাকে চিকিৎসাও দেয়া হয়েছে।

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারি রেজিষ্টার ডা. খালেদ মাহমুদ জানান, তার শরীরে রক্তের চাপ দ্রুত কমছিল। তাকে হাসপাতালের আইসিইউতে রেখে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar