ছবি- সংগৃহীত

একাই সিল মেরে মেরে ভোট নেবেন তিনি!

নির্বাচনের দিন একাই ব্যালট পেপারে সিল মেরে মেরে ভোট নেবেন তিনি। এমপি, উপজেলা চেয়ারম্যান, যুবলীগ, ছাত্রলীগ কাউকে লাগবে না। তিনি একাই যথেষ্ট।

কক্সবাজারের টেকনাফে একটি নির্বাচনী জনসভায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা মো. হাবিব ওরফে হাবিব মেম্বারের এমন ঘোষণার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনার ঝড় তুলেছে।

কক্সবাজারের টেকনাফের শাহপরীরদ্বীপে নৌকা প্রতীকের সমর্থনে নির্বাচনী জনসভা থেকে তিনি বিএনপির নেতাকর্মীদের কেন্দ্রে যেতে নিষেধ করেন এবং চ্যালেঞ্জ ঘোষণা করে বলেন, ‘আমি আলি হোসেন হাজীর সন্তান। আমাদের পরিবারই যথেষ্ট, কাউকে লাগবে না।’

সোমবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের শাহপরীরদ্বীপ সাংগঠনিক ইউনিয়ন আয়োজিত নির্বাচনী জনসভায় ভাষণ দিতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

এদিকে তার এ বক্তব্যে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

তারা মনে করছেন মো. হাবিবের এ ধরনের বক্তব্য রাজনৈতিক শিষ্টাচার বর্জিত। হাবিবের এ বক্তব্যের সাথে তারা একমত নন। 

তারা মনে করেন, তিনি সভায় উপস্থিত এমপি বদির কাছে শাহপরীরদ্বীপে তার নিজের ও পরিবারের গুরুত্ব তুলে ধরতে গিয়ে 
এমন বিতর্কিত বক্তব্য প্রদান করেছেন।

শাহপরীরদ্বীপ সাংগঠনিক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও জেলার আওয়ামী লীগ সদস্য সোনা আলী তার আয়োজনে অনুষ্ঠিত জনসভায় হাবিব মেম্বারের এরূপ বিতর্কিত বক্তব্য প্রদানের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘এটি দুঃখজনক।’ তিনি জানান, হাবিব শাহপরীরদ্বীপ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা হলেও মূলত তিনি চট্টগ্রাম শহরে বাস করেন।

শাহপরীরদ্বীপ ছাত্রলীগ আহ্বায়ক সাদেকুল আমিন জানান, হাবি মেম্বারের বক্তব্য একান্তই তার নিজস্ব। এটি বক্তব্যে দলের কোনো সম্পর্ক থাকতে পারে না। বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ফলে মানুষ আবারও নৌকায় ভোট দেবে বলে মনে করেন তিনি।

এ বক্তব্যের ব্যাপারে জানতে মো. হাবিবের মুঠোফোনে (০১৮৭৮৬৭৯৯৩২) কয়েক বার কল করা হয়। কিন্তু মোবাইল ফোনের সুইচ অফ থাকায় তার বক্তব্য জানা সম্ভব হয়নি।

শাহপরীরদ্বীপ সাংগঠনিক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি সোনা আলীর সভাপতিত্বে উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাসেদের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান খান বাহাদুর মোস্তাক আহমেদ চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি এথিন রাখাইন, এমপি আবদুর রহমান বদি, সংসদ সদস্য প্রার্থী শাহীন আক্তার, উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আহমদ, ভাইস চেয়ারম্যান মৌলভী রফিক উদ্দিন, জেলা যুবলীগের সাবেক সহ সভাপতি আবুল কালাম, টেকনাফ পৌরসভার মেয়র হাজী ইসলাম, সাবরাং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক নুর হোসেন,আওয়ামীলীগ নেতা রশিদ আহমদ, টেকনাফ উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সরওয়ার আলম, সাধারন সম্পাদক আব্দুল হক,টেকনাফ পৌরসভার কাউন্সিলর কোহিন‚র আক্তার, শাহ পরীর দ্বীপ ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি রেজাউল করিম রেজু, ইউপি মেম্বার ফজলুল হক, নুরুল আমিন, ছেনুয়ারা বেগম, শাহ পরীর দ্বীপ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহবায়ক সাদেকুল আমিন, যুগ্ন আহবায়ক হাফিজ উল্লাহ, সাবেক মহিলা মেম্বার সনজিদা বেগম প্রমুখ।

উল্লেখ্য, টেকনাফের সাবরাং ইউনিয়নের ৩টি ওয়ার্ড নিয়ে শাহপরীরদ্বীপ সাংগঠনিক ইউনিয়ন গঠিত। এখানে ১১ হাজারের অধিক ভোটার রয়েছে বলে জানিয়েছে উপজেলা নির্বাচন অফিস।

সূত্র- জাগোনিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar