‘নির্বাচনে এজেন্টশূন্য রাখতেই সারাদেশে ধরপাকড়’

৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনে এজেন্টশূন্য রাখতেই ঐক্যফ্রন্ট নেতাকর্মীদের ধরপাকড় করছে বলে অভিযোগ করেছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।

শুক্রবার বিকেলে পল্টন টাওয়ারের নিচে সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেন ঐক্যফ্রন্ট নেতা ও গণফোরামের প্রেসিডিয়াম সদস্য জগলুল হায়দার আফ্রিক।

জগলুল হায়দার আফ্রিক বলেন, গতকাল বৃহস্পতিবার রাত থেকে সারা দেশে পুলিশ-র‌্যাব চিরুণী অভিযান শুরু করেছে৷ এসবের মূল কারণ জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থীদের ভোটের দিন এজেন্টশূন্য রাখা। এভাবে গ্রেপ্তার নির্যাতন করে ঐক্যফ্রন্টের অগ্রযাত্রা থামিয়ে রাখা যাবে না। ঐক্যফ্রন্টের ভরসা দেশের জনগণ।

Advertisement

তিনি বলেন, আমরা ভোটারদের কাছে আহ্বান জানাই আপনারা নির্ভয়ে ৩০ ডিসেম্বর সকাল থেকে ভোট কেন্দ্রে আসবেন। নিজেদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

জাতীয় ঐকফ্রন্টের এ নেতা বলেন, জনগণ সব ভয়ভীতি কে তুচ্ছ করে বীরের মতো ভোট কেন্দ্রে গিয়ে পছন্দের প্রার্থীকে বিজয়ী করবে ভোট দিয়ে। ৩০ ডিসেম্বর ভোট যুদ্ধে অংশ নিয়ে জনগণ আগ্রাসন মোকাবিলা করবে।

সেনাবাহিনীর বিষয়ে তিনি বলেন, আমরা আশা করছি দেশের জনগণের গর্বের প্রতীক সেনাবাহিনী আগামীকাল ও ভোটের দিন ভোটের সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করে জনগণের ভোটাধিকার নিশ্চিত করবে।

শুক্রবার সাড়ে ৩টায় জামান টাওয়ারের চতুর্থ তলায় ঐক্যফ্রন্ট কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন হওয়ার কথা থাকলেও টাওয়ারের নবম তলায় আগুন লাগার কারণে পল্টন টাওয়ারের নিচে সংবাদ সম্মেলন করে ঐক্যফ্রন্ট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar