৩৬ কোটি টাকার ওষুধ ধ্বংস, জরিমানা দেড় কোটি টাকা

আদালতের নির্দেশে সারা দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে ৩৬ কোটি ৪১ লাখ ৯৫ হাজার টাকার  মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ জব্দ করে ধ্বংস করা হয়েছে। এ ঘটনায় বিভিন্ন জনের বিরুদ্ধে বিভিন্ন জায়গায় ১৫২ টি মামলা করা হয়েছে।

এছাড়া মেয়াদ উত্তীর্ণ ওষুধ রাখার দায়ে বিভিন্ন ব্যবসায়ীকে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে দেড় কোটি টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. মাহবুবুর রহমানের দাখিল করা প্রতিবেদেনে এ তথ্য উঠে এসেছে। মঙ্গলবার অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয়ে এ প্রতিবেদন জমা পড়েছে।

আগামী বৃহস্পতিবার বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চে এ প্রতিবেদন উপস্থাপন করা হবে।

বিষয়টি জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কোর্টের ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার আবদুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার।

এর আগে গত ১৮ জুন সারা দেশে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ সংরক্ষণ ও বিক্রি বন্ধ এবং মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ প্রত্যাহার/ধংস করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।

একইসঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা ‍নিয়ে ৩০ দিনের মধ্যে আদালতে প্রতিবেদন দিতে বলেন আদালত। জনস্বার্থে দায়ের করা এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে এই আদেশ দেওয়া হয়।

গত ১০ মে এক অনুষ্ঠানে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলেন, ঢাকা শহরের ৯৩ শতাংশ ফার্মেসিতে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ রাখা হয়। এ বিষয়ে সংবাদপত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদন যুক্ত করে রিট করেন ১৭ জুন জাস্টিস ওয়াচ ফাউন্ডেশনের পক্ষে নির্বাহী পরিচালক সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মাহফুজুর রহমান মিলন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Skip to toolbar